কবিতা, বিরহের কবিতা

বড়ুই পাতার মালা

স্বপ্নের ঘুড়ি উড়ে যাবে নীলাচলের অববাহিকায় উদাস দুপুরে
বৈরী ঋতুর দেয়াল ভেঙে
খুনসুটির আড়ালে প্রাণবন্ত হৃদস্পন্দন ফাঁকি দিবে নিবিড়
খেয়ালে হেয়ালে
বায়ুস্তরের অন্তস্তলে
অস্বস্তির রঙিন চাঞ্চল্য ফেনিলে নির্বাসনের পোষাকের মলাটে
বৈকালীর পরিত্যক্ত চরাচরে নীলকমল জরাগ্রস্ত ছাঁচে দোদুল্যমান
খেমটা মায়াবনে
সংহারে উপকূলে
নিনাদের অবসাদের নিষাদ জেগে উঠে বিষাদের ভরা গাঙে
স্খলিত
নিমজ্জিত
দুর্বিষহ ধোঁয়াশায় অস্পষ্ট মসৃণ ললাটে বিলীয়মান উত্তাপ
লাফিয়ে উঠে নিটোল নির্ঘুম মর্গে বিবর্ণ শয্যার উঠোনে
ঝোপের কার্নিশে
ভঙ্গিমার টানেলে
সন্তর্পণে যন্ত্রণার গোঁয়ারে ক্লান্তির ভ্রান্তির প্রদীপ জ্বলে গোরস্থানের আস্তানায়
ছিঁড়ে খাঁড়ে
সত্তাময় চূড়া থেকে সংকুচিত সঞ্চারিত মাধুর্যের সুরসুধার ঘ্রাণ ভেসে আসে
ফালি ফালি নষ্ট চাঁদোয়ায় গোধূলির রঙধনু ছড়ায় নিরন্নের উপবাসে
দীপ্র অম্বালিতে
ভয়ার্ত উর্ণানাভে
জলচল স্লোগানে কস্মিনকালের ক্রুদ্ধ কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে মালিকের ডাকে
খরস্রোতের অভিমানে বেনামি চির কঙ্কাল
চিৎকার দিয়ে উঠবে নিরুত্তর বিবেকের কাছে আপন বীতপ্রেমে
রসালো ঝংকারে মৌনতার সবুজ দিগন্তে
বড়ুই পাতার মালা পরাবে ডোরাকাটা কাফনে ঘোলাটে দুপুরে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *